জুমাদাল উখরা-১৪৩২   ||   মে-২০১১

খুকির রোযনামচা

বারীরাহ বাশীর, ঢাকা

১২/২/১১

আজ প্রথম রোযনামচা লিখতে বসেছি। আমি রোযনামচা লিখতে পারি না, তবু লিখতে বসলাম। কারণ আম্মুর সঙ্গে ওয়াদা করেছি যে, রোযনামচা লিখবো।

আমার চাচাত বোন লুবাবা সুন্দর করে রোযনামচা লিখতে পারে। ও আমাকে দেখলে খুব খুশী হয়, আমিও খুশী হই।

বড় চাচী আমাদেরকে অনেক সুন্দর, আর মজার মিমি দিয়েছেন। বড় চাচী খুব ভালো।

১৪/২/১১

আমাদের ঘরটা আজ খুব সুন্দর লাগছে। আমরা বেড়াতে যাবো। এজন্য বড় আপু ঘরটা গুছিয়েছে। ঘর গুছিয়ে রাখলে মনটা ভালো হয়ে যায়। আমি আজ অনেক খুশী হলাম। আমার বড় আপু অনেক ভালো। মাঝে মাঝে ভালো না।

১৫/২/১১

আজকের দিনটা খুব অন্ধকার লাগছে। মনে হয় বৃষ্টি হবে। বৃষ্টি হলে ভালোই হবে। বৃষ্টিতে ভিজতে পারবো। অনেকক্ষণ তাকিয়ে থাকলাম, কই বৃষ্টি তো হচ্ছে না! কিছুক্ষণ বই পড়লাম। বইটা অনেক মজার ছিলো। পরে বৃষ্টি হলো, কিন্তু বৃষ্টিতে ভেজা হলো না।


 

advertisement