জুমাদাল উখরা ১৪৩৫   ||   এপ্রিল ২০১৪

তোমার শোকর হে আলাহ ...

মুহাম্মাদ ফজলুল বারী

একদিন বাসে বিভিন্ন রোগ ব্যাধি ও তার চিকিৎসা সম্বলিত একটি স্টিকার চোখে পড়ল। সাথে সাথে নবীজীর শেখানো একটি দুআও মনে পড়ে গেল। এ সকল রোগে যারা আক্রান্ত, তাদেরকে উদ্দেশ্য করে বললাম, আলহামদুলিলাহিলাযী আ-ফানী মিম্মাবতালাকুম বিহী ওয়া ...।

 শোকর আলাহর, যিনি আমাকে নিরাপদ রেখেছেন ঐ সকল রোগ থেকে যা তোমাদেরকে আক্রান্ত করেছে এবং ...।

এ জাতীয় কঠিন ও জটিল রোগ আমারও হতে পারত। আলাহ নিজ অনুগ্রহে আমাকে তা থেকে রক্ষা করেছেন। তোমার শোকর হে আলাহ, শোকর ও কৃতজ্ঞতার এবং আলাহমুখি হওয়ার কত সুন্দর আয়োজন। আমাদের জীবনে কতকিছু ঘটে, বালা-মুসিবত আসে, প্রিয়জন চলে যায়-সে অবস্থায়ও যেন আমরা আলাহকে স্মরণ রাখি, আলাহতেই সমর্পিত হতে পারি তাই আলাহ শিখিয়ে

 দিয়েছেন, বিপদ আসলে বান্দা বল-ইন্না লিলাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মুমিন বান্দার জীবন শোকর ও সবরের জীবন। সর্বাবস্থায় সে শোকর ও সবরের অবস্থায় থাকবে এবং কল্যাণের মাঝে থাকবে। হাদীস শরীফে ইরশাদ হয়েছে-

মুমিনের ব্যাপারটা আশ্চর্যজনক।

তার পক্ষে তার সবকিছুই মঙ্গল। মুমিন ছাড়া অন্য কারও অবস্থা সেরকম নয়। তার সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য দেখা দিলে শোকর আদায় করে যা তার পক্ষে মঙ্গল আবার যদি দুঃখ-কষ্ট দেখা দেয়, সবর করে, এটাও তার পক্ষে মঙ্গল (সহীহ মুসলিম, হাদীস : ২৯৯৯)। 

 

 

advertisement