রবিউস সানী-১৪৩২   ||   মার্চ-২০১১

ছাত্রজীবনে হযরত মাওলানা ইউসুফ রাহ.

অনুবাদ : মুহাম্মাদ হাবীবুর রহমান

হযরত মাওলানা মুহাম্মদ ইউসুফ রাহ. তালেবে ইলম যামানায় অনেক বেশী মেহনত করেছেন। মুতালাআ এবং অধ্যায়েনের মাঝে ডুবে থাকতেন। অর্ধরাত পর্যন্ত পড়াশুনায় মগ্ন থাকা সাধারণ ছিল বিষয়। শুরু থেকেই লেখালেখির আগ্রহ ছিলো এই জন্যই তালিবে ইলম-জীবনেই হাদীস বর্ণনাকারী ও তাবেয়ীদের আহওয়াল এবং তাদের পরিচয় ও জীবনীর উপর মেহনত আরম্ভ করেছিলেন। বিভিন্ন ইলম ও ফনের বিশেষত হাদীস ও ফিকহের কিতাব সংগ্রহ করার প্রচুর  আগ্রহ ছিল। দিল্লীর কিতাব ব্যবসায়ী এবং বিভিন্ন কুতুবখানার সাথে সব সময় যোগাযোগ রাখতেন। ভালো ও মুফিদ কিতাব পাওয়া মাত্রই খরিদ করে নিতেন। কখনও কখনও নিজের সংগৃহীত কিতাব সম্পর্কে হযরত শাইখ যাকারিয়া রাহ.কে অবগত করতেন এবং তার কুতুবখানার জন্যও সংগ্রহ করার জন্য সুপারিশ করতেন। এ ধরনের একটি চিঠি এখানে পেশ করা হল। এই চিঠি লেখার সময় তার বয়স ছিল ষোল বছর।

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ

আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর রহমতে আমি ভালো আছি এবং আল্লাহর কাছে কামনা করি আপনিও ভালো থাকুন। পর সংবাদ এই যে, আমি আজ দিল্লীর আসাহহুল মাতবে থেকে মুসলিম শরীফের একটি নুসখা, যার হাশিয়াতে ইমাম নববীর অতুলনীয় শরাহটি রয়েছে, পাঁচ রুপি দিয়ে খরিদ করেছি। আগামী রবিবারের মধ্যে এর মূল্য আট রুপি হয়ে যাবে। যদি মুনাসিব মনে করেন, তাহলে আপনার কুতুবখানার জন্যও সংগ্রহ করতে পারেন। মিশকাত শরীফও ছাপা হয়েছে, যার মূল্য দুই রুপি এবং বাইযাবি শরীফ ছাপা হয়েছে, মূল্য দুই রুপি, তিবী, বুখারি শরীফ এর মূল্য পাঁচ রুপি আট আনা, জালালাইন দুই রুপি। এখন যদি আপনি মুনাসিব মনে করেন তাহলে সংগ্রহ করতে পারেন। আর যদি মুনাসিব মনে না করেন তাহলে নাও নিতে পারেন। আপনার ভালো-মন্দ আমাকে জানাবেন এবং চাচাজানের খেদমতে আমার সালাম পেশ করে দুআর কথা বলবেন। মাওলানা আব্দুল কাদের ছাহেবের খেদমতে সালাম পেশ করে দুআর কথা বলবেন। অন্য সবাই ভালো আছে। ভাবীকে আমার সালাম দিবেন এবং আমার জন্য দুআ করবেন। আল্লাহ তাআলা আপনাকে জাযায়ে খায়র দান করুন। ষ

বান্দা মুহাম্মদ ইউসুফ 

৭-৩-১৯৩২ ঈ., জুমাবার

 

 

advertisement