রজব ১৪৩৬ || মে ২০১৫

ইবনে আব্দুল কুদ্দুস বাহুবলী - দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজরী, চট্টগ্রাম

প্রশ্ন

মুহতারাম হযরত! আমি নিম্নোক্ত প্রশ্ন দুটির উত্তর জানতে আগ্রহী। আশা করি জানাবেন।

(ক) হেদায়া ১ম খণ্ডের ৩৫নং পৃষ্ঠায় আলমাউল জারী-এর বিষয়ে ২৩ নং হাশিয়ায় যে হাউযুল হাম্মাম-এর কথা বলা হয়েছে, এর দ্বারা কি আমাদের দেশে প্রচলিত পানির ট্যাংক যা ছাদের উপর বসানো হয় তা উদ্দেশ্য?

(খ) অনেক মাসআলায় আইম্মায়ে আহনাফের মুখতালিফ ক্বওল থাকে। তন্মধ্যে একটি হয় মুফতাবিহী। এখন প্রশ্ন হল, মুফতাবিহী ক্বওল ছাড়া অন্য ক্বওলের উপর কি আমল করা যাবে না?


উত্তর

(ক) হেদায়ার হাশিয়ায় যে হাউযুল হাম্মাম-এর কথা বলা হয়েছে তার দ্বারা উদ্দেশ্য হলআগের যামানার হাম্মামের হাউজ বা চৌবাচ্চা। বিস্তারিত জানার জন্য মুফতী মুহাম্মাদ শফী রাহ.-এর রিসালা খয়রুল কালাম ফী হাওযিল হাম্মাম দেখা যেতে পারে।

(খ) যে মতটি গায়রে মুফতাবিহী সেটি যদি সকল আসহাবুত তারজীহ এবং মুহাক্কিক ফকীহগণের নিকট যাল্লাত ও শায তথা ভুল ও পদস্খলনের শামিল হয়তবে তা কোনোক্রমেই আমলযোগ্য নয়।

ইমাম কাসেম ইবনে কুতলুবুগা রাহ. বলেছেন-

"إن الحكم و الفتيا بما هو مرجوح خلاف الإجماع، و إن المرجوح في مقابلات الراجح بمنـزلة العدم، والترجيح بغير مرجح في المتقابلات ممنوع، وإن من يكتفي بأن يكون فتواه أو عمله موافقا لقول أو وجه في المسألة، ويعمل بما شاء من الأقوال والوجوه من غير نظر في الترجيح فقد جهل وخرق الإجماع" انتهى.

তবে কোনো মারজূহ মত যদি যাল্লাত ও পদস্খলন পর্যায়ের না হয় তাহলে বিশেষ কিছু ওজরের অবস্থায় শর্ত সাপেক্ষে আমল করা যেতে পারে-এ কথা কেউ কেউ বলেছেন। বিস্তারিত জানার জন্য আল্লামা ইবনে আবেদীন রাহ.-এর শরহু উকদি রসমিল মুফতী এবং মুফতী তকী উসমানী দামাত বারাকাতুহুম-এর উসূলুল ইফতা ওয়া আদাবুহু দেখা যেতে পারে। 

এই সংখ্যার অন্যান্য শিক্ষা পরামর্শসমূহ পড়ুন

advertisement
advertisement