জুমাদাল উলা-১৪৩২ || এপ্রিল-২০১১

মুহাম্মাদ খাইরুল ইসলাম - ডেমরা, ঢাকা

২১৭৮. প্রশ্ন

জনৈক ব্যক্তি হজ্ব আদায়ের জন্য মক্কা মুকাররমায় গমন করে এবং আল্লাহর অনুগ্রহে হজ্বের কার্যাবলি যথাযথভাবে সম্পন্ন করে, কিন্তু হজ্বের শেষ পর্যায়ে এসে অসুস্থ হয়ে পড়ে। যার কারণে আইয়্যামে নহর তথা যিলহজ্বের ১০, ১১ ও ১২ তারিখে তাওয়াফে যিয়ারত আদায় করতে পারেনি। জানার বিষয় হল, তাওয়াফে যিয়ারত আদায় করা কি জরুরি? না এর পরিবর্তে দম দিলেই যথেষ্ট হবে? আর তাওয়াফের নির্ধারিত সময় থেকে বিলম্বে আদায় করলে দম দেওয়া ওয়াজিব হবে কি?

 

উত্তর

তাওয়াফে যিয়ারত হজ্বের অন্যতম ফরয। তাই যেকোনোভাবেই হোক এবং যখনই হোক তা অবশ্যই আদায় করতে হবে। এই তাওয়াফ না করলে যত দমই দেওয়া হোক হজ্ব আদায় হবে না। অধিক অসুস্থতার কারণে পায়ে হেঁটে তাওয়াফ করতে না পারলে হুইল চেয়ার বা অন্য যে কোনো পদ্ধতিতে স্বয়ং ঐ ব্যক্তিকেই তাওয়াফ করতে হবে। কাউকে দিয়ে বদলী করানোরও সুযোগ নেই।

উল্লেখ্য যে, ১২ তারিখ সূর্যাস্তের মধ্যে তাওয়াফে যিয়ারত সম্পন্ন করা ওয়াজিব। বিনা ওজরে বিলম্ব করলে দম ওয়াজিব হয়। প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে যেহেতু অসুস্থতা ছিল তাই বিলম্বের কারণে কোনো দম বা জরিমানা দিতে হবে না।

-সহীহ বুখারী ১/২২১; মানাসিক, মোল্লা আলী কারী ২৩২, ৩৪৮; সহীহ মুসলিম ১/৪১৩; মুসনাদে আহমদ ৩/৩১৭; মুসান্নাফ ইবনে আবী শাইবা ৮/১৩২; আলমুহীতুল বুরহানী ৩/৩৯৫, ৪৪৯; বাদায়েউস সানায়ে ২/৩১১-৩১৬; গুনইয়াতুন নাসিক ২৩৯, ২৭৩; মাবসূত, সারাখসী ৪/৪৪; আলবাহরুর রায়েক ২/৩৪৮

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement