জুমাদাল উলা-জুমাদাল আখিরাহ ১৪৪২ || জানুয়ারি ২০২১

নাইমুল হাসান - বাংলাবাজার, ঢাকা

৫২৭৯. প্রশ্ন

আমার নানা-নানী ও মামারা মোট ছয়জন ইহরাম করে উমরার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হন। এয়ারপোর্টে গিয়ে গাড়ি থেকে নামার পরপরই একটি বাইকের চাকা আমার বড় মামার পায়ের পাতার উপর উঠে যায়। এতে তাঁর পায়ের পাতার হাড় ভেঙ্গে যায়। আমি তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাই আর বাকি পাঁচজন নির্ধারিত ফ্লাইটে চলে যান। ডাক্তার আমার মামাকে এক মাস বেডরেস্টে থাকতে বলেন। এখন মুফতী সাহেবের নিকট জানতে চাচ্ছি, উমরায় ইহরাম বাঁধার পর অসুস্থতা বা অন্য কোনো ওজরের কারণে উমরায় না যেতে পারলে ইহরাম থেকে হালাল হওয়ার উপায় কী? এব্যাপারে শরীয়তের বিধান কী? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হব।

উত্তর

উমরার ইহরাম বাঁধার পর অসুস্থতা বা অন্য কোনো ওজরের কারণে উমরায় যেতে না পারলে হালাল হওয়ার জন্য কারো মাধ্যমে হারামের এলাকায় একটি দম দিতে হবে। অর্থাৎ একটি ছাগল বা দুম্বা জবাই করতে হবে। এভাবে পশু জবাই করলেই আপনার মামা হালাল হয়ে যাবেন। এক্ষেত্রে মাথা মুণ্ডন করা বা চুল কাটা জরুরি নয়। তবে হালাল হওয়ার নিয়তে হলক বা চুল খাটো করা মুস্তাহাব।

আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. থেকে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন-

إذَاذُبِحَهَدْيُهُحَلّمِنْكُلِّشَيْءٍ.

অর্থাৎ হেরেমের এলাকায় তার পক্ষ থেকে পশু জবাই করলেই সে হালাল হয়ে যাবে। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, বর্ণনা ১৪০৫৪)

আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস রা., আলাকামা রাহ., হাসান বসরী রাহ., মুহাম্মাদ ইবনে সীরীন রাহ., যুহরী রাহ., সাঈদ ইবনে জুবাইর রাহ. প্রমূখ সাহাবা-তাবেয়ীন থেকে অনুরূপ বর্ণিত আছে। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, বর্ণনা ১৪০৪৮-৫৮)

প্রকাশ থাকে যে, আপনার মামাকে উক্ত উমরা পরবর্তীতে কাযা করে নিতে হবে।

-কিতাবুল আছার, ইমাম আবু ইউসুফ, বর্ণনা ৪৯৭; কিতাবুল হুজ্জাহ আলা আহলিল মাদীনাহ ১/৪৫০; আলমুহীতুল বুরহানী ৩/৪৬৪; ফাতাওয়া খানিয়া ১/৩০৫; আলবাহরুর রায়েক ৩/৫৩; রদ্দুল মুহতার ২/৫৯২

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন