মুহাররম ১৪৪১ || সেপ্টেম্বর ২০১৯

হাসান আহমাদ - উত্তরা, ঢাকা

৪৮৮৪. প্রশ্ন

মোশাররফ ও হাসান সাহেব একটি কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছেন। শ্রম তাদের উভয়ের। কিন্তু বিনিয়োগের সকল টাকা আবদুল মাজীদ সাহেবের। তাদের মাঝে এভাবে চুক্তি হয়েছে যে, মোশাররফ ও হাসান সাহেব চার ভাগের এক ভাগ করে মোট অর্ধেক লাভ পাবেন। আর বাকি অর্ধেক লাভ আবদুল মাজীদ সাহেবের। আর মোশাররফ ও হাসান সাহেব নিজ খরচের জন্য প্রতি মাসে ২০ হাজার করে মোট ৪০ হাজার টাকা বেতন পাবেন। জানার বিষয় হল, তাদের এই চুক্তি বৈধ কি না? কারবারের ভেতর কোনো সমস্যা থাকলে তা এখন সমাধানের উপায় কী?

উত্তর

প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে মোশাররফ ও হাসান সাহেবের জন্য বেতন নির্ধারণ করা সহীহ হয়নি। কেননা এক পক্ষের পুঁজি ও অপর পক্ষের শ্রম অর্থাৎ মুযারাবা কারবারে শ্রমদাতার জন্য পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা জায়েয নয়। এক্ষেত্রে তার শ্রমের বিনিময়ে শুধু লভ্যাংশই প্রাপ্ত হবে। তবে এর ফলে চুক্তিটি ফাসেদ হয়ে যায়নি। এখন চুক্তি থেকে ঐ ধারাটি বাদ দিতে হবে। ভবিষ্যতে তারা যদি বেশি নিতে চান তাহলে তাদের লভ্যাংশের হার বাড়িয়ে নিতে পারেন। যেমন প্রত্যেকে ৩০% বা ৩৫% করে নিবেন আর অবশিষ্টাংশ বিনিয়োগকারীর হবে।

প্রকাশ থাকে যে, মাসিক খরচের জন্য যদি প্রতি মাসে কিছু নিতে চান তাহলে পরবর্তীতে লাভ থেকে সমন্বয় করে নিবেন- এ শর্তে নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে যা নেওয়া হয়েছে এর চেয়ে লাভ যদি কম হয় তাহলে অবশিষ্ট টাকা ফেরত দিতে হবে।

-বাদায়েউস সানায়ে ৫/১১৯; আলমুহীতুল বুরহানী ১৮/১২৭; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ৪/২৮৭

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement