মুহাররম ১৪৪১ || সেপ্টেম্বর ২০১৯

মুহাম্মাদ নাবিল - বরিশাল

৪৮৭২. প্রশ্ন

মুহতারাম, আমার পরিচিত এক মহিলা হাজ্বীর ৯ যিলহজ¦ হায়েয শুরু হয়। তার ফিরতি ফ্লাইট প্রথম দিকে হওয়ায় তিনি বাধ্য হয়ে এই অবস্থায় ১২ তারিখ তাওয়াফে যিয়ারত ও ১৩ তারিখ তাওয়াফে বিদা করে দেশে চলে আসেন। এখন তার করণীয় কী? তার কি তাওয়াফে যিয়ারত আদায় হয়েছে?

উত্তর

হাঁ, তার তাওয়াফে যিয়ারত আদায় হয়েছে। তবে হায়েয অবস্থায় তা আদায় করার কারণে তার উপর একটি বাদানা তথা পূর্ণ একটি উট বা গরু জরিমানা হিসেবে জবাই করা আবশ্যক হয়েছে। আর সে যেহেতু হায়েয অবস্থায় ছিল তাই তার করণীয় ছিল, তাওয়াফে বিদা না করেই দেশে চলে আসা। এ কারণে তার উপর কোনো দম ওয়াজিব হবে না। কিন্তু সে যেহেতু হায়েয অবস্থায় তাওয়াফে বিদা আদায় করেছে, তাই তার উপর একটি দম ওয়াজিব হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, বাদানা ও দম উভয়টি হেরেমের এলাকায় জবাই করা জরুরি। হেরেমের বাইরে দিলে আদায় হবে না। নিজে যেতে না পারলে অন্য কারো মাধ্যমেও তা করালে আদায় হয়ে যায়।

-সহীহ বুখারী, হাদীস ১৭৬০; বাদায়েউস সানায়ে ২/৩০৯, ৩৩৩; আলমুহীতুল বুরহানী ৩৪৫৩; আলবাহরুল আমীক ২/১১১৭, ১১২১, ১১২৭; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/২৪৫, ২৪৬; গুনয়াতুন নাসিক পৃ. ১৯০, ২৭৫

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement