জুমাদাল উলা ১৪২৯ || মে ২০০৮

মুহাম্মাদ আরিফ - কুমিল্লা

প্রশ্ন

(ক) আমি এখন আল্লাহর রহমতে হিদায়া কিতাব পড়ছি এবং তার শরাহ ফাতহুল কাদীর কিনেছি। এখন প্রশ্ন হল কিতাব দুটি কোন নিয়মে মুতালাআ করলে বেশি উপকৃত হব। আশা করি সুন্দর পরামর্শ দিয়ে আমাকে উপকৃত করবেন।

(খ) আলহামদুলিল্লাহ আমি অনেক কিতাব খরিদ করেছি। এখন জিজ্ঞাসা হল আমি তো এইগুলো বাড়ির টাকা দিয়ে খরিদ করেছি। এখন এই কিতাবগুলোতে আমার ভাইরাও কি শরীক হবে? দলীলসহ জানিয়ে বাধিত করবেন।


উত্তর

(ক) হিদায়া ও ফাতহুল কাদীর সম্পর্কে একাধিকবার লেখা হয়েছে। আলকাউসারের মুহাররম ২৬, ফেব্রুয়ারি ০৫; সফর ২৬, মার্চ ০৫; জুমাদাল উখরা ২৮, জুলাই ০৭ সংখ্যাগুলো দেখুন। এরপরও যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে লিখুন।

(খ) এটা তো দারুল ইফতায় জিজ্ঞাসা করা উচিত ছিল।

আপনার মুরববীরা আপনাকে কিতাব কেনার টাকা দেওয়ার সময় যদি একথা না বলে থাকেন যে, এ কিতাব তোমাদের সবার, তাহলে তো বোঝাই যাচ্ছে, এগুলো আপনারই কিতাব। তবে আপনার কিতাব থেকে উপকৃত হওয়ার হকদার আপনার ভাইয়ের চেয়ে অধিক আর কে হতে পারে?

এই সংখ্যার অন্যান্য শিক্ষা পরামর্শসমূহ পড়ুন

advertisement
advertisement