মুহাররম ১৪৩৫ || নভেম্বর ২০১৩

মুহাম্মাদ ইসমাঈল আব্দুল ওয়াহ্হাব - নন্দীগ্রাম, বগুড়া

প্রশ্ন

 

মুহতারাম! আমিশরহে বেকায়াজামাতে পড়ছি। হাদীসের আলো কিতাবটি মোটামুটি মুখস্থ করেছি। কিছু কিছু মনে আছে আর কিছু ভুলে গেছি। একটু পড়লে আবার ইয়াদ হয়। হালতে আমি এখন কিতাবের উপর সীমাবদ্ধ থাকবো না কী করবো?

() অন্য কিতাব পড়লে কীভাবে পড়বো। কীভাবে সময় দিবো ইত্যাদি জানতে চাই।  

মুহতারাম, আপনার কাছে উলূমে হাদীস পড়ার আশা রাখি। তাই আমাকে কীভাবে কী করতে হবে ব্যাপারে কিছু পরামর্শ দিয়ে ধন্য করলে ভাল হয়।  


 

উত্তর

 

মাশাআল্লাহ, আপনিহাদীসের আলোকিতাবটি হেফজ করেছেন। আল্লাহ তায়ালা আপনার ইলম আমলে বরকত নসীব করুন। এখন আপনি সামনে উক্ত কিতাবের হেফজকে মাঝে-মধ্যে তাজা করার পাশাপাশিআহাদীসুল আহকামবিষয়ক কোনো একটি কিতাব মুতলাআয় রাখতে পারেন এবং এর উল্লেখযোগ্য একটি অংশ হেফজ করতে পারেন। এজন্য আপনিইলাউস সুনানকিতাবের মূল মতন যাজামেউল আহাদীসনামে পৃথকভাবে ছাপা হয়েছে অথবা কমপক্ষে আল্লামা নীমাবী রহ. এরআসারুর সুনানকিতাবের মতনকে নির্বাচন করতে পারেন। আপনি এই মুতালাআ হিফজের জন্য সম্ভব হলে প্রতিদিন কিছু সময় অন্যথায় সপ্তাহে কিছু সময় এবং বিরতির দিনগুলোর কিছু সময় বরাদ্দ করতে পারেন।

আর আপনি ভবিষ্যতে উলূমুল হাদীস নিয়ে পড়াশুনা করার আশা ব্যক্ত করেছেন। তো এর জন্য প্রথমত প্রধান শর্ত হচ্ছে পাকাপোক্ত কিতাবী ইসতেদাদ অর্জন করা এবং ইলমের অনির্বাণ তৃষ্ণা ইলমের জন্য বিলীন হওয়ার মানসিকতা তৈরি করা। সুতরাং আপনাকে নিজ উস্তাজের তত্ত্বাবধানে কিতাবী ইসতেদাদ হাসিলে সচেষ্ট হতে হবে। এবং বারবার নিজের ইসতেদাদ যাচাই করতে হবে।

 

এই সংখ্যার অন্যান্য শিক্ষা পরামর্শসমূহ পড়ুন

advertisement
advertisement