শাওয়াল ১৪৩৩ || সেপ্টেম্বর ২০১২

মুহাম্মাদ সাদেকুর রহমান - বিবিরবাগিচা, যাত্রাবাড়ি, ঢাকা

১৬৫৫. প্রশ্ন

কিছুদিন পূর্বে আমার বন্ধু শাকেরের বিবাহ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করি। খাবারের পর বিবাহ পড়ানো হবে। তাই উভয় পক্ষের সকলেই উপস্থিত হল। মেয়ে পক্ষের ওকিল অর্থাৎ মেয়ের বাবা কাযী সাহেবকে বিবাহ পড়ানোর সম্পূর্ণ অধিকার দিয়েছে। অতপর কাযী সাহেব কনের পক্ষ থেকে বরের (শাকের) নিকট প্রস্তাব রাখলেন, কিন্তু বর শাকের মহরের পরিমাণে নারাজ হয়ে কিছু না বলে চুপ করে থাকে। এরপর আমি এবং তার পিতা তাকে দূরে নিয়ে এসে বুঝালাম। এতে সে শান্ত হয় এবং কবুল করতে সম্মতি দেয়। অতপর আমরা এসে দেখি, কাযী সাহেব চলে গেছেন। আমরা মেয়ের পিতাকে বললে তিনি বলেন, আজকে নয়, বিয়ে পরে হবে। কিন্তু বর (শাকের) ঘটনাস্থলে উপস্থিত সবার সামনে বলেছে, আমি কবুল করিলাম।

আমি জানতে চাই, উল্লেখিত অবস্থায় শাকেরের বিবাহ সহীহ হয়েছে কি? যদি না হয়ে থাকে তাহলে সহীহভাবে বিবাহ হওয়ার পদ্ধতি কী? জানালে উপকৃত হব।

 

উত্তর

প্রশ্নের বিবরণ অনুযায়ী এ বিবাহ সহীহ হয়নি। কারণ বিবাহ সহীহ হওয়ার জন্য প্রস্তাব এবং গ্রহণ একই মজলিসে হওয়া জরুরি। এক পক্ষের প্রস্তাবের পর অপর পক্ষ সম্মতিদানের পূর্বে মজলিস ছেড়ে চলে গেলে ঐ প্রস্তাব বাতিল বলে গণ্য হয়। তাই এরপর পূর্বোক্ত প্রস্তাবের ভিত্তিতে কবুল বললে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।

এখন যদি উভয় পক্ষ বিবাহ করতে সম্মত হয় তাহলে মোহর নির্ধারণ করে দুইজন সাক্ষীর উপস্থিতিতে নতুন করে ইজাব-কবুল করে নিতে হবে।

-বাদায়েউস সানায়ে ২/৪৯০; আদ্দুররুল মুখতার ৩/১৪; আলবাহরুর রায়েক ৩/৮৩; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/২৬৯

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন