জুমাদাল উলা-১৪৩২ || এপ্রিল-২০১১

মুহাম্মাদ রফিকুল ইসলাম - নারায়ণগঞ্জ

২১৮০. প্রশ্ন

জনৈক ব্যক্তির কাছ থেকে এক ব্যক্তি যাকাতের নেসাবের চেয়ে অধিক টাকা-পয়সা ঋণ নিয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ে আদায় করার কথা থাকলেও সে আদায় করেনি। ঋণগ্রহীতা ঋণ পরিশোধ করতে অস্বীকারও করেনি, আবার সে গরীবও নয়। আমার জানার বিষয় হল, উক্ত সম্পদের উপর যাকাত ফরয হবে কি না? আর যদি ঋণ গ্রহীতা তা পরিশোধ করে দেয় তাহলে বিগত বছরগুলোর অনাদায়ী যাকাত আদায় করতে হবে কি না?


 

উত্তর

প্রশ্নের বর্ণনা অনুযায়ী ঋণদাতাকে উক্ত সম্পদের যাকাত আদায় করতে হবে। তবে ঋণ উসুল হওয়ার আগে ঐ টাকার যাকাত আদায় করা জরুরি নয়। পাওনা হস্তগত হওয়ার পর যাকাত আদায় করলেই চলবে। তবে কোনো যাকাতবর্ষ পার হয়ে যাওয়ার পর হস্তগত হলে অনাদায়ী বছরেরও যাকাত আদায় করতে হবে। এক্ষেত্রে নিয়ম হল, প্রথম বছরের যাকাত গোটা সম্পদ থেকে আদায় করবে। দ্বিতীয় বছরে প্রথম বছরের যাকাতের পরিমাণ বাদ দিয়ে অবশিষ্টকে মূল সম্পদ ধরে যাকাত আদায় করবে।

-খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/২৩৮; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/২৯৯; বাদায়েউস সানায়ে ২/৮৮; আদ্দুররুল মুখতার ২/৩০৫; আলবাহরুর রায়েক ২/২০৭; আলমুহীতুল বুরহানী ৩/২৮৪; ফাতহুল কাদীর ২/১২৩; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/১৭৪-১৭৫; ফাতাওয়া খানিয়া ১/২৪৫; মাবসূত, সারাখসী ২/১৯৪

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement