মুহাররাম ১৪৩২ || ডিসেম্বর ২০১০

মুহাম্মাদ ফাহীম - শরীয়তপুর

২০৭৯. প্রশ্ন

আমাদের এলাকায় কবরস্থানের পাশে ছোট একটি কুঁড়েঘর বানিয়ে এক দরবেশ বসবাস করেন। তিনি প্রতি দিন সেখানে বসে বসে মৃতদের উদ্দেশ্যে কুরআন খতম দেন। মৃতের আত্মীয়-স্বজন তার কাছে এসে খতমের কথা বললে তার চাহিদা অনুযায়ী হাদিয়া দিতে হয়। জানতে চাই, এভাবে কুরআন খতম করে বিনিময় নেওয়া কি জায়েয?


উত্তর

মৃতের জন্য ঈসালে সওয়াব করা গুরুত্বপূর্ণ কাজ। কিন্তু তা হতে হবে শরীয়তের তরীকা মোতাবেক। যেমন নিজেরা কুরআন মজীদ পড়ে মৃতের জন্য সওয়াব পৌঁছানো যায়। অন্যকে দিয়েও করানো যায়কিন্তু এ জন্য কোনো পারিশ্রমিক বা হাদিয়ার আদান্তপ্রদান বৈধ নয়।

আপনাদের কবরস্থানের দরবেশ সাহেবের ঐ কাজ সম্পূর্ণ শরীয়তবিরোধী। মৃতের উদ্দেশ্যে কুরআন খতম করে,দুআ-দরূদ পড়ে হাদিয়ার নামেও টাকা নেওয়া যাবে না। নিলে হারাম হবে। এতে মৃতের কোনো উপকার হয় না। কোনো সওয়াবও পৌঁছে না।

-খুলাসাতুল ফাতাওয়া ৩/১১৪; তানকীহুল ফাতাওয়া হামীদিয়া ২/১৩৭-১৩৮; রদ্দুল মুহতার ৬/৫৭

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement