জুমাদাল উলা ১৪৪১ || জানুয়ারি ২০২০

উম্মে মারজান - বোয়ালমারী, ফরিদপুর

৫০১০. প্রশ্ন

জনৈক ব্যক্তি তার বড় পুত্রবধুর খেদমতে সন্তুষ্ট হয়ে তার জন্য নির্দিষ্ট একটা জমির অসিয়ত করেন। তখন সেখানে ঐ ব্যক্তির স্ত্রী ও এক ছেলে উপস্থিত ছিল। বিষয়টি অন্য দুই পুত্রবধু জানতে পারলে তাদের মাঝে কানাঘুষা হয়। একপর্যায়ে তা পারিবারিক ঝগড়ায় রূপ নেয়। এ পরিস্থিতি দেখে বড় পুত্রবধু সবার সামনে তার শ^শুরকে বলে আমার কোনো জমি লাগবে না। আমি আপনার জমি নিব না। তখন ঐ ব্যক্তি বলেছিল, আমি অসিয়ত করেছি, তুমি পাবে। ঐ ঘটনার পর আর এ বিষয়ে কোনো কথা  হয়নি।

বর্তমানে সে ব্যক্তি বেঁচে নেই। বড় পুত্রবধু যেহেতু শ^শুরের জীবদ্দশায় তার পক্ষে কৃত অসিয়ত প্রত্যাখ্যান করেছে তাই মৃতের ওয়ারিসরা তাকে ঐ জমি দিতে চাচ্ছে না। কিন্তু সে এখন জমিটি নিতে খুবই আগ্রহী।

জানার বিষয় হল, উপরোক্ত পরিস্থিতিতে ঐ ব্যক্তির কৃত অসিয়ত বহাল আছে কি না? এবং উক্ত পুত্রবধু কি অসিয়তসূত্রে ঐ জমি দাবি করতে পারবে?

উত্তর

অসীয়ত কার্যকর হয় অসীয়তকারী মারা যাওয়ার পর। তাই তার মৃত্যুর পরই কেবল যার জন্য অসীয়ত করা হয়েছে সে তা কবুল বা প্রত্যাখ্যান করার অধিকার রাখে। এর আগে কবুল বা প্রত্যাখ্যান করলেও তা ধর্তব্য হয় না।

অতএব প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে যেহেতু বড় পুত্রবধু তার শ^শুরের মারা যাওয়ার পর জমিটি নিতে আগ্রহী তাই উক্ত জমিটি তারই প্রাপ্য। (মৃতের কাফন-দাফন খরচ ও ঋণ পরিশোধের পর মোট সম্পদের এক তৃতীয়াংশ পর্যন্ত) এক্ষেত্রে ওয়ারিসরা তা বাধা দেওয়ার অধিকার রাখে না। ওয়ারিসদের কর্তব্য, মৃত ব্যক্তির অসীয়ত অনুযায়ী জমিটি এ মহিলাকে বুঝিয়ে দেওয়া।

-কিতাবুল আছল ৫/৫১৭; ফাতাওয়া সিরাজিয়া পৃ. ১৪৭; ফাতাওয়া ওয়ালওয়ালিজিয়্যা ৫/৩৬৭; আলমুহীতুল বুরহানী ২২/২৪৫, ২৫২; তাবয়ীনুল হাকায়েক ৭/৩৭৯; আদ্দুররুল মুখতার ৬/৬৫৭

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement