সফর ১৪৪১ || অক্টোবর ২০১৯

নাজমুল হুদা - নড়াইল

৪৮৯৮. প্রশ্ন

আমার ভগ্নিপতি খুব রাগী মানুষ। সন্তানরা সামান্য কথা মানতে না পারলেই রেগে যায় এমনকি মারধরও শুরু করে দেয়। আমাদের কথাও মানে না। আমরা তাকে একজন আলেমের কাছে নিয়ে যাই। এরপর থেকেই তার মাঝে পরিবর্তন আসতে থাকে। সে সন্তানদেরকে মারধর করা ছেড়ে দেয় আর ভবিষ্যতে না মারার শপথও করে। কিছুদিন আগে পাশের বাড়ির লোকদের সাথে একটি বিষয় নিয়ে ঝগড়া হলে সে তাদেরকে লাঠি নিয়ে মারতে যায়। আমার ভাগিনা ঝগড়া থামাতে গেলে ভুলে তার মাথায় আঘাত পড়ে এবং সে আহত হয়। ভগ্নিপতির তাকে মারার উদ্দেশ্য ছিল না; বরং অন্যরা সরে যাওয়ায় তার মাথায় পড়েছে। জানার বিষয় হল, ভাগিনার গায়ে এভাবে আঘাত লাগার কারণে কি তার পিতার শপথ ভেঙ্গে গেছে? এখন তার করণীয় কী? জানালে কৃতজ্ঞ থাকব।

উত্তর

প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে আপনার ভগ্নিপতি যেহেতু তার ছেলেকে ইচ্ছাকৃত মারেনি বরং অন্যকে মারতে গিয়ে অনিচ্ছাকৃতভাবে ছেলের গায়ে লেগে গেছে। তাই এ কারণে আপনার ভগ্নিপতির কসম ভঙ্গ হয়নি। সুতরাং তাকে কাফফারা দিতে হবে না।

 -ফাতাওয়া খানিয়া ২/১১১; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৬/২১৬; মুখতারাতুন নাওয়াযিল ২/২৭৩; ফাতাওয়া সিরাজিয়া পৃ. ৫৮

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement