শাওয়াল ১৪৪০ || জুন ২০১৯

ইবনে মাহমুদ - তেজগাঁও, ঢাকা

৪৭৯২. প্রশ্ন

আমার মামা আমেরিকা প্রবাসী। তার দুটো কিডনীই প্রায় অচল। তাকে ১ দিন পর পর ডায়ালাইসিস করতে হয়। কিছুদিন পূর্বে তিনি ওয়ারিসসূত্রে ঢাকায় একটি বাড়ি এবং ২৬ লাখ টাকার মালিক হন। তিনি মোটামুটি সচ্ছল। তবে আগে তার অর্থনৈতিক অবস্থা এমন ছিল না, যার মাধ্যমে হজ্ব আদায় করা যায়।

তিনি জানতে চাচ্ছেন, অসুস্থ হবার পর মিরাসসূত্রে প্রাপ্ত সম্পদের কারণে তার উপর কি হজ্ব ফরয হয়ে গিয়েছে? যদি ফরয হয় তাহলে তার করণীয় কী? কারণ তার বর্তমান অবস্থায় সফর করা সম্ভব নয়। জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর

হাঁ, ওয়ারিসসূত্রে প্রাপ্ত সম্পদের কারণে আপনার মামার উপর হজ্ব ফরয হয়েছে। তবে তিনি যেহেতু নিজে হজ্ব করতে সক্ষম নন তাই তার কর্তব্য হল, কাউকে দিয়ে বদলী হজ্ব করানো।

অবশ্য তার যদি সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে তাহলে তিনি এখনই বদলী হজ্ব করাবেন না। যখন সুস্থ হবেন তখন নিজেই হজ্ব করে নিবেন। কিন্তু তা সম্ভব না হলে বদলী হজ্ব করানোর অসীয়ত করে যাবেন।

উল্লেখ্য, কাউকে দিয়ে বদলী হজ্ব করানোর পর তিনি যদি সুস্থ হয়ে যান এবং হজ্বের সামর্থ্য থাকে তাহলে পুনরায় নিজে গিয়ে হজ্ব আদায় করতে হবে।

আরো উল্লেখ্য যে, বদলী হজ্ব সক্রান্ত বিভিন্ন মাসআলা রয়েছে। কাউকে বদলী হজ্বে পাঠাতে হলে কোনো নির্ভরযোগ্য আলেম থেকে এ সম্পর্কিত মাসআলা জেনে নিতে হবে।

-ফাতাওয়া খানিয়া ১/২৮১; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৩/৬৪৮; আলবাহরুর রায়েক ২/৩০৭; রদ্দুল মুহতার ২/৪৫৮; মানাসিক, মোল্লা আলী আলকারী পৃ. ৫১, ৬৪

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement