শাওয়াল ১৪৪০ || জুন ২০১৯

আব্দুল খালেক - টঙ্গী, ঢাকা

৪৭৮২. প্রশ্ন

কিছুদিন আগে আমার এক চাচাতো ভাই ইন্তিকাল করে। আমি, আমার মামা এবং আমাদের মসজিদের মুয়াযযিন সাহেব মিলে  গোসল দেই। গোসল শেষে মামা চাচাতো ভাইকে কাফনের কাপড় পরিয়ে সুগন্ধি লাগায়, মাথার চুল চিরুনি দিয়ে আঁচড়িয়ে দেয় এবং বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও কনিষ্ঠাঙ্গুলির বেশ বড় দুটো নখ কেটে অন্যান্য নখের সমান করে দেয়। মুয়াযযিন সাহেব চুল আঁচড়ানো এবং নখ কাটতে বাধা দিলে তিনি তা মানেননি; বরং বিভিন্ন ধরনের যুক্তির আশ্রয় নেন।  তো আমার জানার বিষয় হল-

ক. মৃত ব্যাক্তির মাথার চুল আঁচড়ানো এবং নখ টাকার ব্যাপারে শরীয়তের বিধান কী?

খ. কেউ যদি ভুলে বা মাসআলা না-জানার কারণে এমনটি করে ফেলে, তবে ঐ কর্তিত নখের ব্যাপারে করণীয় কী? তা কি সাধারণ ময়লার মত ফেলে দেওয়া হবে, নাকি মৃতের কবরে দাফন করা হবে? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হতাম।

 

উত্তর

মায়্যিতের নখ কেটে দেওয়া এবং চুল আঁচড়ানো নাজায়েয হয়েছে। মায়্যিতের নখ, মাথার চুল বা শরীরের অন্য কোনো পশম কাটা এবং চুল দাড়ি আঁচড়ানো নাজায়েয। আয়েশা রা. থেকে বর্ণিত, তিনি কিছু লোককে মায়্যিতের চুল আঁচড়িয়ে দিতে দেখে আপত্তি করে বলেন, তোমরা মায়্যিতের চুল আঁচড়িয়ে দিচ্ছ কেন? (কিতাবুল আছার, আবু ইউসুফ, বর্ণনা ৩৮২)

কেউ ভুলে নখ বা চুল এগুলোর কোনোটি কেটে ফেললে কর্তিত চুল, নখগুলো মায়্যিতের কাফনের ভিতর দিয়ে দিতে হবে। কারণ, মায়্যিতের দেহের সব অংশসহই দাফন করা সুন্নত।

-কিতাবুল আছার, ইমাম মুহাম্মাদ ১/২৪২; মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবাহ ৭/১৩৯, হাদীস ১১০৫৪; আলমাবসূত, সারাখসী ২/৫৯; আলমুহীতুল বুরহানী ৩/৪৯; শরহুল মুনয়া, পৃ. ৫৭৯; হাশিয়াতুত তাহতাবী আলাল মারাকী, পৃ. ৩১২; আদ্দুররুল মুখতার ২/১৯৮

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement