শাওয়াল ১৪৪০ || জুন ২০১৯

আবদুল হাই - বি. বাড়িয়া

৪৭৮১. প্রশ্ন

কিছুদিন আগে আমার বড় মামা ইন্তিকাল করেন। আমি, ছোট মামা ও এক মুরুব্বী মিলে বড় মামাকে গোসল দেই। গোসল দেওয়া শেষে হাত-পা ধুয়ে শরীরের কাপড় পরিবর্তন করি। পূর্ব থেকে অযু থাকায় নতুন অযু না করেই জানাযার নামাযে শরীক হই। নামায শেষে এলাকার এক ভাই বেশ আপত্তি করে বলে, তোমার জানাযার নামায শুদ্ধ হয়নি। কারণ, তুমি গোসল করনি। পরে এবিষয়ে একাধিক ইমাম সাহেবকে জিজ্ঞেস করলে ভিন্ন ভিন্ন উত্তর পাই। ফলে পেরেশানি আরো বেড়ে যায়, তাই মুফতী সাহেবের কাছে জানতে চাচ্ছি, ঐ ভাইয়ের কথাটি কি ঠিক?

উত্তর

মায়্যিতকে গোসল দিলেই গোসলদাতার অযু-গোসল করতে হয়’ এ ধারণা ঠিক নয়। হাদীসের কিতাবে আছে-

عَنِ ابْنِ مَسْعُودٍ، وَعَائِشَةَ، كَانَا لَا يَرَيَانِ عَلَى مَنْ غَسّلَ مَيِّتًا غُسْلًا.

হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. ও আয়েশা রা. থেকে বর্ণিত, তারা মৃতব্যক্তির গোসলদাতার জন্য গোসল করা জরুরি মনে করতেন না। (মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, বর্ণনা ৬১০৫)

সুতরাং আপনার ঐ দিনের জানাযার নামায আদায় হয়ে গেছে। এ নিয়ে সংশয়ের প্রয়োজন নেই।

উল্লেখ্য যে, মৃতের শরীরে যেহেতু নাপাকি থাকার আশঙ্কা থাকে এবং গোসলের ছিটা গোসলদাতার শরীর বা কাপড়ে লাগারও আশঙ্কা থাকে, তাই ফকীহগণ গোসলদাতার জন্য সাধারণ অবস্থায় গোসল করা উত্তম বলেছেন।

মৃত ব্যক্তিকে গোসল দেওয়ার পর নিজের গোসল করা আবশ্যক হওয়া না হওয়ার ব্যাপারে শরীয়তের সঠিক মাসআলা কী? -মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক ৩/৪০৬; আলমাবসূত, সারাখসী ১/৮২; ফাতহুল কাদীর ২/৭৬; আলবাহরুর রায়েক ১/৯১; রদ্দুল মুহতার ২/২০২

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement