শাবান-রমযান ১৪৪০ || এপ্রিল-মে ২০১৯

মুহাম্মাদ যোবায়ের আহমাদ - কামরাঙ্গীর চর, ঢাকা

৪৭৫৩. প্রশ্ন

আমাদের টুপির একটি গার্মেন্ট আছে, আর আল্লাহর রহমতে সেখানে চার ওয়াক্ত নামায জামাতের সাথে আদায়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। একজন নির্দিষ্ট ইমামও আছেন। ইমামের অনুপস্থিতে আমিও নামায পড়াই। ঘটনাক্রমে একদিন উভয়ে অনুপস্থিত ছিলাম তখন আমার ফুফাতো ভাই ইমামতি করে, আর ও হল একজন মক্তবের ছাত্র, এখনো বালেগ হয়নি। আর উপস্থিত সকলেই নামায সম্পর্কে এতটাই অজ্ঞ যে, তারা কেউই ইমামতির দায়িত্ব পালনে সম্মত হচ্ছিল না, বিধায় অপারগ হয়ে আমার ফুফাতো ভাই নামায পড়ায়। এখন নামায কি সহীহ হয়েছে? কাযা করা লাগবে কি লাগবে না? জানতে পারলে উপকৃত হব।

উত্তর

নাবালেগের পেছনে প্রাপ্তবয়স্কদের ইক্তিদা সহীহ নয়। এক বর্ণনায় এসেছে, হযরত আতা রাহ. বলেন-

لَا يَؤُمّ الْغُلَامُ الّذِي لَمْ يَحْتَلِمْ.

অপ্রাপ্ত বয়স্ক কোনো বালক যেন ইমামতি না করে। (মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, বর্ণনা ৩৮৪৫)

তাই ঐ শিশুর পেছনে যেসকল প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি নামায পড়েছে তাদের নামায হয়নি। তা কাযা করে নিতে হবে।

-বাদায়েউস সানায়ে ১/৩৫৮; আলমুহীতুল বুরহানী ২/১৭৯; ফাতহুল কাদীর ১/৩০৯; মাজমাউল আনহুর ১/১৬৭; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৮৫

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement