রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ || ডিসেম্বর ২০১৭

উম্মে আফীফ - ফরিদপুর

৪২৭০. প্রশ্ন

গত রমযানে আমি আমার বাবার বাড়ীর এলাকায় এক দরিদ্র মহিলাকে যাকাতের কাপড় দেই। তার স্বামী পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও শয্যাশায়ী। খুবই অভাব অনটনে তাদের সংসার চলে। কিন্তু পরে তার সাথে কথা প্রসঙ্গে জানতে পারি, কিছুদিন আগে তার স্বামী পঞ্চাশ হাজার টাকার সরকারী অনুদান পেয়েছে, যার পুরোটাই সে সন্তানদের ভবিষ্যতের জন্য ব্যাংকে জমা রেখেছে।

আমার প্রশ্ন, এ অবস্থায় কি আমার যাকাত আদায় হয়েছে? না হয়ে থাকলে এখন আমার কী করণীয়? উল্লেখ্য, তার স্বামীর আর্থিক অনুদান প্রাপ্তির বিষয়টি যাকাত প্রদানের সময় আমার জানা ছিল না।

 

উত্তর

প্রশ্নোক্ত অবস্থায় আপনার যাকাত আদায় হয়ে গেছে। কেননা আপনি তাকে দরিদ্র মনে করেই যাকাত দিয়েছেন। এছাড়া উক্ত মহিলার স্বামী যাকাতের নেসাব সমপরিমাণ সম্পদের মালিক হলেও মহিলা তো দরিদ্র। তাই মহিলাকে যাকাত দেওয়া ঠিক হয়েছে।

প্রকাশ থাকে যে, স্বামী যদি স্ত্রীর যথাযথ ভরণ-পোষণ করে তবে তার জন্য বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া যাকাত গ্রহণ করা উচিত নয়।

-কিতাবুল আছল ২/১২৪; বাদায়েউস সনায়ে ২/১৬৩, ১৫৮; আলমুহীতুল বুরহানী ৩/২১৩; খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/২৪২; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/১৮৯

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement