রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ || ডিসেম্বর ২০১৭

সাইফুল ইসলাম - নোয়াখালী

৪২৫৬. প্রশ্ন

আমি লঞ্চে ঢাকা যাতায়াত করি। যাত্রীদের মধ্যে অনেককে দেখেছি, তারা জামাতের সাথে নামায আদায়ের জন্য আযান দেওয়াকে আবশ্যক মনে করে। এখন আমি জানতে চাচ্ছি, মহল্লার মসজিদে জামাতের সাথে নামায আদায়ের জন্য যেভাবে আযান দিতে হয়, সেভাবে লঞ্চের মধ্যে জামাতের সাথে নামায আদায়ের জন্যও কি আযান দিতে হবে?

 

উত্তর

হাদীস শরীফে এসেছে, মালিক বিন হুয়াইরিছ রা. বলেন, এমন দু’জন ব্যক্তি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে আসল, যারা সফরে বের হওয়ার ইচ্ছা করেছে। তখন নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন-

إِذَا أَنتُمَا خَرَجْتُمَا فَأَذِّنَا ثُمّ أَقِيمَا، ثُمّ لِيَؤُمّكُمَا أَكْبَرُكُمَا.

তোমরা যখন সফর করবে তখন (নামাযের সময়) আযান ও ইকামত দিবে। এবং তোমাদের মধ্যে যে বড় সে ইমামতি করবে। (সহীহ বুখারী, হাদীস ৬৩০)

এ সকল বর্ণনার ভিত্তিতে ফকীহগণ বলেন, সফর অবস্থায় আযান-ইকামতের সাথে জামাতে নামায পড়াই সুন্নাহসম্মত ও উত্তম পন্থা। তবে সফর অবস্থায় জামাতে

নামাযের জন্য শুধু ইকামত দেওয়াও যথেষ্ট। প্রখ্যাত তাবেয়ী ইবরাহীম নাখায়ী রাহ. বলেন- تُجْزِيهِ إِقَامَةٌ فِي السّفَرِ.

সফরের মধ্যে ইকামত দেয়াই যথেষ্ট। (মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, হাদীস ১৮৯৮)

-কিতাবুল আছল ১/১১১; আলমাবসূত, সারাখসী ১/১৩২; বাদায়েউস সনায়ে ১/২৬৫; তাবয়ীনুল হাকায়েক ১/২৫০

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement