জুমাদাল আখিরাহ ১৪৪১ || ফেব্রুয়ারি ২০২০

আহসান হাবীব - রাজশাহী

৫০২৫. প্রশ্ন

কখনো কখনো বাগানের মালিকদের থেকে এক-দুই বছরের জন্য অগ্রিম বাগানের আম ক্রয় করে নিই। আবার কখনো আম ছোট থাকাবস্থায় ক্রয় করি। পাকার সময় হলে আম পেড়ে নিয়ে আসি। হুযুরের কাছে জানার বিষয় হল, আমাদের এই লেনদেন বৈধ কি না? বৈধ না হলে বৈধ কোনো পদ্ধতি আছে কি না জানালে কৃতজ্ঞ থাকব।

উত্তর

গাছে ফল হওয়ার আগে বাগানের অগ্রিম ক্রয়-বিক্রয় জায়েয নয়। এ ব্যাপারে হাদীসে নিষেধাজ্ঞা এসেছে। জাবের রা. বলেন-

نَهَى النّبِيّ صَلّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلّمَ عَنْ بَيْعِ السِّنِينَ.

নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম بيع السنين তধা অগ্রিম এক বা একাধিক বছরের জন্য (গাছের ফল) বিক্রি করা থেকে নিষেধ করেছেন। (সহীহ মুসলিম, হাদীস ১৫৩৬)

সুতরাং গাছে আম হওয়ার আগেই অগ্রিম আমের ক্রয়-বিক্রয় জায়েয হবে না। তবে বাগানের মালিকদের সাথে ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত আলোচনা বা ওয়াদা করা যেতে পারে। এবং সম্ভাব্য দাম নিয়েও প্রাথমিক কথা হতে পারে। কিন্তু প্রকৃত ক্রয়-বিক্রয় ও লেনদেন সম্পন্ন করতে হবে গাছে আম হওয়ার পর ফলন দেখে। ফল হওয়ার আগে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে না। এ কথা তো বলার অপেক্ষা রাখে না যে, প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে পণ্য হচ্ছে আম। এখন যদি তা বেরই না হয় তাহলে কিসের বেচা-কেনা হচ্ছে। শরীয়তে এ ধরনের অস্তিত্বহীন বস্তুর বেচা-কেনার কোনো সুযোগ নেই।

-কিতাবুল হুজ্জাহ আলা আহলিল মাদীনাহ ১/৬৫০; কিতাবুল আছল ২/৪৩৮; বাদায়েউস সানায়ে ৪/৩২৬; আলমুহীতুল বুরহানী ৯/৩১০; ফাতহুল কাদীর ৫/৪৮৮; আলবাহরুর রায়েক ৫/৩০০

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement