যিলকদ ১৪৪০ || জুলাই ২০১৯

খালেদ সাইফুল্লাহ - সাভার, ঢাকা

৪৮২১. প্রশ্ন

আমাদের এলাকায় প্রচলন আছে যে, যারা ধান ভাঙ্গায় তারা প্রতি মন ধানে যত টাকা পারিশ্রমিক আসে তার পরিবর্তে তত টাকার কুঁড়া নেয়। আর কুঁড়া না দিলে ধান ভাঙ্গাতে চায় না।

প্রশ্ন হল, কুঁড়া নিয়ে ধান ভাঙ্গানো জায়েয কি না? নাজায়েয হলে বৈধ পদ্ধতি কী হবে? দয়া করে জানাবেন।

উত্তর

ধান ভাঙ্গানোর পারিশ্রমিক হিসাবে কুঁড়া নেওয়া জায়েয আছে। তবে যে ধান ভাঙ্গানো হবে এর কুঁড়া থেকেই পারিশ্রমিক দিতে হবে চুক্তির সময় এমন শর্ত করা জায়েয হবে না। বরং পারিশ্রমিকের বিষয়টি এমন রাখতে হবে যে, মালিক চাইলে অন্য কুঁড়া থেকেও পারিশ্রমিক আদায় করতে পারে। অর্থাৎ কুঁড়ার পরিমাণ ও গুণগত মান নির্ধারণ করবে। এভাবে চুক্তি করার পর পরবর্তীতে যে ধান ভাঙ্গানো হবে এর কুঁড়া থেকেও পারিশ্রমিক দেওয়া যাবে।

-কিতাবুল আছল ৩/৪৩৬; তাবয়ীনুল হাকায়েক ৬/১২৭; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ১৫/১১৫; আদ্দুররুল মুখতার ৬/৫৭; শরহুল মাজাল্লাহ, আতাসী ২/৫৩৮

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement