শাবান-রমযান ১৪৪০ || এপ্রিল-মে ২০১৯

আয়েশা - যাত্রাবাড়ি, ঢাকা

৪৭৭৮. প্রশ্ন

আমার বাবা একজন নওমুসলিম। বাবার বংশের সবাই বৌদ্ধ। মাস দেড়েক আগে আমার এক বৌদ্ধ ফুফু ও ফুফাত ভাই আমাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে। সবাই একসাথে দুপুরের খাবার খাই। খাওয়ার একপর্যায়ে পানি পানের জন্য ফুফুর পান করা পানির গøাসে মুখ দিতে গেলে মা ইশারা দিয়ে নিষেধ করেন। ফলে আমি অন্য গøাস দিয়ে পানি পান করি। পরে মা আমাকে বিষয়টি খুলে বলেন- ‘তোমার ফুফু ঐ গ্লাসে মুখ দিয়ে পানি পান করার কারণে অবশিষ্ট পানি নাপাক হয়ে গেছে। কারণ, অমুসলিম হল অপবিত্র।’

তো প্রশ্ন হল, আমার মার আপত্তিটি কি ঠিক? এক্ষেত্রে সঠিক মাসআলাটি জানালে কৃতজ্ঞ হব।

উত্তর

আপনার মার কথাটি ঠিক নয়। অমুসলিমদের মুখের লালা অপবিত্র নয়। তাই অমুসলিমদের খাদ্য-পানীয়ের অবশিষ্টাংশ নাপাক নয়।

উল্লেখ্য যে, কুরআনুল কারীমে কাফেরদেরকে যে নাপাক বলা হয়েছে তা তাদের আকীদা ও বিশ্বাসের অপবিত্রতার কারণে; এজন্য নয় যে তাদের শরীরে নাপাকি না থাকলেও তা নাপাক গণ্য হবে।

-মাবসুত, সারাখসী ১/৪৭; শরহুল মুনয়া পৃ. ১৬৬; বাদায়েউস সনায়ে ১/২০১; ফাতাওয়া খানিয়া ১/১৮; আদ্দুররুল মুখতার ১/২২২

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement