জুমাদাল উলা ১৪৪০ || ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মুহাম্মাদ আবদুল ওহাব - গোড়াপাড়া, যশোর

৪৬৯২. প্রশ্ন

অনেক সময় আমি আসর ও এশার আগের চার রাকাত সুন্নত পড়ি। অন্যান্য নামাযের মত এ নামাযেও প্রথম বৈঠকে দরূদ শরীফ পড়ি না। কিছু দিন আগে আমার এক মাদরাসা পড়–য়া ছাত্র প্রতিবেশী বললেন, এসকল নামাযের প্রথম বৈঠকে দরূদ শরীফ পড়তে হয়। অনুরূপভাবে তৃতীয় রাকাতে দাঁড়ানোর পর পুনরায় সানা, আউযুবিল্লাহও পড়তে হয়। এখন মুফতী সাহেবের কাছে জানতে চাচ্ছি, তার কথা কি ঠিক? এ ব্যাপারে শরীয়তের সঠিক সমাধান জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর

হাঁ, মাদরাসার ছাত্রটি ঠিকই বলেছেন। নফল ও সুন্নতে গায়রে মুআক্কাদা নামাযের প্রথম বৈঠকে দরূদ শরীফ ও দুআ মাছুরা পড়া উত্তম। এরপর তৃতীয় রাকাতের শুরুতে সানা ও আউযুবিল্লাহও পড়া উত্তম। তবে আপনি যেভাবে পড়তেন সে নামাযও আদায় হয়েছে। যদিও তা মুস্তাহাব নিয়ম অনুযায়ী হয়নি। উল্লেখ্য যে, যোহর ও জুমার চার রাকাত সুন্নতে মুআক্কাদা নামাযের প্রথম বৈঠকে শুধু তাশাহহুদ পড়বে; দরূদ শরীফ পড়বে না। অনুরূপভাবে তৃতীয় রাকাতের শুরুতে সানা ও আউযুবিল্লাহও পড়বে না।

-ফাতহুল কাদীর ১/৩৯৬; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/১৩২; শরহুল মুনয়াহ পৃ. ৩৯৪; আলবাহরুর রায়েক ২/৫৬; মারাকিল ফালাহ পৃ. ২১৪; আদ্দুররুল মুখতার ২/১৬; ইমদাদুল আহকাম ১/৬১১

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement