যিলক্বদ ১৪৩০ || নভেম্বর ২০০৯

মুহাম্মাদ শামসুদ্দীন - মাদরাসা দারুর রাশাদ

১৭৬৮. প্রশ্ন

তাবলীগে যখন চিল্লায় বের হই তখন কাকরাইলের বড়দের কাছে শুনেছি, আমরা চিল্লায় মুসাফিরের হুকুমে থাকব। কিন্তু বেহেশতি জেওরে বা অন্যান্য কিতাবে দেখলাম যে, ১৫ দিনের নিয়ত করলে মুকীম হিসেবে গণ্য হবে। তবে এই ক্ষেত্রে ৪০ দিন থাকার নিয়ত করা সত্ত্বেও কিভাবে আমরা মুসাফিরের হুকুমে রইলাম?

উত্তর

সফর সম দূরত্ব অতিক্রম করে গন্তব্যস্থলে পৌঁছলে মুকীম হওয়ার জন্য কোনো একটি গ্রাম বা একটি শহরে ১৫ দিন বা তার বেশি সময় অবস্থানের নিয়ত করা জরুরি। এক ইউনিয়নের একাধিক গ্রাম বা ভিন্ন ভিন্ন দুই সিটি কিংবা এক থানার বিভিন্ন স্থানে ১৫ দিন বা তার বেশি অবস্থানের নিয়ত করলে মুকীম হবে না। মুসাফিরই থাকবে। অতএব প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে চিল্লায় বের হয়ে যদি কোনো গ্রাম বা সিটিতে ১৫ দিন বা তার বেশি থাকার নিয়ত থাকে তবে মুকীম গণ্য হবে। চাই ঐ গ্রাম বা সিটির বিভিন্ন মসজিদ মিলেই ১৫ দিন থাকা হোক বা এক জায়গাতেই থাকা হোক। বেহেশতী জেওর-এ মুকীম হওয়ার অর্থও তাই। চিল্লায় যেহেতু কোনো এক গ্রাম বা সিটিতে সাধারণত ১৫ দিন একাধারে থাকা হয় না তাই এক্ষেত্রে ১৫ দিনের বেশি সফর হলেও মুকীম হবে না। এজন্যই কাকরাইল থেকে মুসাফির হওয়ার কথা বলা হয়েছে।

বাদায়েউস সানায়ে ১/২৬৮-২৭০; আলমুহীতুল বুরহানী ২/৩৯১; আলবাহরুর রায়েক ২/১৩১-১৩২; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ২/৮; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/১৩৯; আদ্দুররুল মুখতার ২/১২৫-১২৬

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement