মুহাররম ১৪৪০ || অক্টোবর ২০১৮

মুহিউস সুন্নাহ - জৈরতপুর, কেরাণীগঞ্জ

৪৫৬২. প্রশ্ন

সফর অবস্থায় আমরা দুই সাথী একদিন মসজিদে জামাত না পেয়ে নিজেরা জামাত করি। সফরে সবসময় কসর করলেও যেহেতু মসজিদে জামাতে নামায পড়লে পূর্ণ চার রাকাতই পড়া হয় এ হিসাবে আমিও চার রাকাত নামায পড়াই। ঘটনাক্রমে ভুলবশত প্রথম বৈঠক করিনি। তাই সাহু-সিজদা করে নামায শেষ করি। নামায শেষে আমার সাথীটি বলল, নামায সহীহ হয়নি। কেননা, মুসাফির ব্যক্তি চার রাকাত পড়ার ক্ষেত্রে প্রথম বৈঠক না করলে নামায নষ্ট হয়ে যায়। বিষয়টি আমার বোধগম্য হয়নি। কেননা আমি তো সাহু-সিজদা করেছি। তাই সে পুনরায় নামাযটি পড়লেও আমি পড়িনি। জানার বিষয় হল, তার কথাটি কি ঠিক? আমাদের ঐ দিনের যোহরের নামায সহীহ হয়েছে কি না?

উত্তর

আপনার সাথীর কথা সঠিক। আপনাদের ঐ দিনের যোহরের নামায সহীহ হয়নি। কেননা মুসাফিরের জন্য যোহর দুই রাকাত পড়া আবশ্যক এবং দুই রাকাতের পর যে বৈঠক করা হয় সেটাই শেষ বৈঠক। সুতরাং দুই রাকাত পর বসা আপনার জন্য ফরয ছিল। আর ফরয ছুটে গেলে সাহু সিজদা করলেও নামায শুদ্ধ হয় না। তাই আপনাকে ঐ দিনের যোহরের নামায কাযা করে নিতে হবে।

-আলমুহীতুল বুরহানী ২/৩৮৩; খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/২০০; বাদায়েউস সানায়ে ১/২৬০; আলবাহরুর রায়েক ২/১৩০; মাজমাউল আনহুর ১/২৪০

এই সংখ্যার অন্যান্য প্রশ্ন-উত্তর পড়ুন

advertisement
advertisement