মুহাম্মাদ আবদুর রহিম - বরিশাল

৪৬২৭. প্রশ্ন

একদিন আমি আসরের পরে মসজিদে কাযা নামায পড়ছিলাম। আমার এক প্রতিবেশী বললেন, আছরের পরে নামায পড়া মাকরূহ। তাই আসরের পরে কাযা নামায পড়া যাবে না। হুযুরের কাছে আমার জানার বিষয় হল, আসলেই কি আসরের পরে কাযা নামায পড়া নিষেধ? জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর

আসরের পর সূর্য হলুদ বা নিস্তেজ হয়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত কাযা নামায পড়া জায়েয। এ সময় কাযা নামায পড়া মাকরূহ নয়। হাঁ, এ সময় কোনো নফল নামায পড়া মাকরূহ। তবে এ সময় মসজিদে কাযা নামায পড়বে না। কারণ এতে অন্য কেউ ভুল বুঝতে পারে। তাই আসরের পর কাযা আদায় করতে চাইলে তা ঘরে পড়াই ভাল হবে। আর সূর্য হলুদ বা নিস্তেজ হয়ে গেলে কাযা নামায বা যে কোনো নফল পড়া নাজায়েয।

-শরহু মুখতাসারিত তহাবী ১/৫৪৩; হালবাতুল মুজাল্লী ১/৬৫৫; আলমুহীতুল বুরহানী ২/১০; আলবাহরুর রায়েক ২/২৫১; রদ্দুল মুহতার ১/৩৭৫

শেয়ার লিংক

মিসবাহ উদ্দীন - চট্টগ্রাম

৪৬২৬. প্রশ্ন

আমার বাবার দাঁত কিছুটা দুর্বল। পেয়ারা, আপেল ইত্যাদি শক্ত কিছু কামড়ে খাওয়ার সময় তাতে রক্তের হালকা ছাপ পড়ে।

হুজুরের কাছে আমার জানার বিষয় হল, এমন অবস্থায় কি নতুন করে অযু করতে হবে? নাকি পূর্বের অযু দ্বারাই তিলাওয়াত, নামায ইত্যাদি আদায় করতে পারবেন?

উত্তর

আপনার বাবা ফল কামড়ে খেলে তাতে যেহেতু খুব সামান্য রক্তের ছাপ দেখা যায়, তাই এর দ্বারা তার অযু ভঙ্গ হবে না। এক্ষেত্রে নতুন অযু করার প্রয়োজন নেই। পূর্ববর্তী অজু দ্বারাই তিনি তিলাওয়াত, নামায ইত্যাদি আদায় করতে পারবেন।

প্রকাশ থাকে যে, অযু ভাঙ্গার জন্য গড়িয়ে পড়া পরিমাণ রক্ত শরীর থেকে বের হওয়া আবশ্যক। সামান্য রক্ত দৃশ্যমান হলে অযু নষ্ট হয় না।

-ফাতাওয়া খানিয়া ১/৩৮; আততাজনীস ওয়াল মাযীদ ১/১৪৭; বাদায়েউস সানায়ে ১/১২৫; হালবাতুল মুজাল্লী ১/৩৭৭; শরহুল মুনয়াহ, পৃ. ১৩২

শেয়ার লিংক

আবদুস সাত্তার - নড়িয়া, শরীয়তপুর

৪৬২৫. প্রশ্ন

আমি শুক্রবার সকালে চামড়ার মোজা পরিধান করি এবং ঐ মোজার উপর মাসাহ করে জুমার নামায আদায় করি। এরপর সফরে বের হই। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, আমি কত দিন পর্যন্ত এই মোজার উপর মাসাহ করতে পারব?

উত্তর

আপনি তিন দিন তিন রাত পর্যন্ত মাসাহ করতে পারবেন। কারণ মুকিম ব্যক্তি চামড়ার মোজা পরিধানের পর মাসাহের সময় শেষ হওয়ার পূর্বেই সফরে বের হলে মোট তিন দিন তিন রাত পর্যন্ত মাসাহ করতে পারবে।

উল্লেখ্য, তিন দিনের হিসাব শুরু হবে মোজা পরিধানের পর সর্বপ্রথম অযু ভেঙ্গে যাওয়ার সময় থেকে।

-কিতাবুল আছল ১/৭৬; বাদায়েউস সানায়ে ১/৮০; আলইখতিয়ার ১/৯৬; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ১/৪১৬; রদ্দুল মুহতার ১/২৭৮

শেয়ার লিংক

হাফসা - মতলব, চাঁদপুর

৪৬২৪. প্রশ্ন

ঋতুস্রাব চলাকালীন মহিলারা শেখানোর উদ্দেশ্যে কুরআন শরীফের এক আয়াত পরিমাণ তিলাওয়াত করতে পারবে কি? আমি একজন থেকে শুনেছি, শেখানোর উদ্দেশ্যে এক আয়াত এক আয়াত করে তিলাওয়াত করা জায়েয হবে। কিন্তু একজন আলেম বললেন, শেখানোর উদ্দেশ্যেও এক আয়াত পরিমাণ তিলাওয়াত করা জায়েয হবে না।

হযরতের কাছে সঠিক মাসআলাটি জানতে চাচ্ছি। দলীলসহ বিস্তারিত জানালে উপকৃত হব।

উত্তর

ঋতুস্রাব অবস্থায় মহিলাদের জন্য অন্যকে শেখানোর উদ্দেশ্যেও কুরআন মাজীদ পড়া জায়েয হবে না। এমনকি এক আয়াত এক আয়াত করেও পড়া যাবে না।

এক বর্ণনায় এসেছে, হযরত হাসান বসরী রাহ. ও হযরত কাতাদা রাহ. বলেন, ঋতুমতি নারী ও যার উপর গোসল ফরয হয়েছে সে কুরআনের কোনো অংশই পড়বে না। -মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, বর্ণনা ১৩০২

এছাড়াও হযরত ওমর রা., হযরত জাবের রা. ও হযরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর রা., ইবরাহীম নাখায়ী রাহ. প্রমুখ সাহাবা ও তাবেয়ীন থেকেও এ ব্যাপারে বহু হাদীস ও আসার বর্ণিত হয়েছে। এসব দলীলের আলোকে ফকীহগণ বলেন, ঋতুমতি নারীদের জন্য এক আয়াত পরিমাণও পড়া জায়েয নয়। এমনকি শেখানোর উদ্দেশ্যেও জায়েয নয়।

সুতরাং কুরআন মাজীদ শেখা-শেখানোর সাথে সম্পৃক্ত মহিলাগণও ওজরের দিনগুলোতে কুরআন তিলাওয়াত থেকে বিরত থাকবেন। অবশ্য একান্ত প্রয়োজন হলে পূর্ণ আয়াত তিলাওয়াত না করে এক-দুই শব্দ করে বলে দিতে পারবেন।

-বাদায়েউস সানায়ে ১/১৫০; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ১/৪৮০; খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/২৩০; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৩৯

শেয়ার লিংক

আহরার আহমাদ - নরসিংদী

৪৬২৩. প্রশ্ন

আমাদের নামায-ঘরটি নদীর খুব নিকটে। আমরা মূলত চরে বসবাস করি। নামায-ঘরে প্রায়ই পানির ব্যাঙ ঢুকে জায়নামাযে পেশাব করে দেয়। জানতে চাই, একারণে জায়নামায কি নাপাক হয়ে যাবে?

উত্তর

না, পানির ব্যাঙের পেশাব নাপাক নয়। তাই বাস্তবেই যদি সেটি পানির ব্যাঙ হয়ে থাকে তাহলে এর কারণে জায়নামায নাপাক হবে না।

অবশ্য আপনাদেরকে যাচাই করে দেখতে হবে, যেসব ব্যাঙ সেখানে যাতায়াত করে সেগুলো পানির ব্যাঙ কি না। কেননা স্থলের ব্যাঙের পেশাব নাপাক।

-আলবাহরুর রায়েক ১/৮৮; আননুতাফ ফিল ফাতাওয়া পৃ. ২৮; শরহুল মুনয়া পৃ. ১৪৬; ইমদাদুল ফাতাওয়া ১/৭৫

শেয়ার লিংক
advertisement
advertisement